ব্রেকিং নিউজ :
Home » অন্যান্য » ক্যরিয়ার » এভিয়েশন নিয়ে পড়াশোনা

এভিয়েশন নিয়ে পড়াশোনা

67প্রাইম নিউজ ডেস্ক : বিজ্ঞানের ক্রমবর্ধমান প্রবৃদ্ধিতে প্রযুক্তি যেমন লাভ করছে উৎকর্ষ, তেমনি মানবজীবনেও এসেছে পরিবর্তন। এরই সঙ্গে পরিবর্তিত হচ্ছে শিক্ষাব্যবস্থা। শিক্ষার মূল উদ্দেশ্য যদিও জ্ঞান অর্জন, তবুও প্রতিযোগিতার এই যুগে জীবনমুখী শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা দিন দিন বেড়েই চলেছে। শিক্ষা যদি বাস্তব ও কর্মজীবনে সঠিকভাবে লাগানো না যায়, তবে জীবনযুদ্ধে টিকে থাকাই দায়। তাই বলা যায়,
টিকে থাকার এই লড়াইয়ে মুখ্য চাহিদা একটি ভালো
ক্যরিয়ার। আর এই ক্যারিয়ারটি যদি হয় আকর্ষণীয় আর অভিজাত তাহলে তো কথাই নেই। এসব ভিন্নমাত্রার পেশায় সফলতার হার ইদানিং অনেক বেশি।
পড়ালেখা করে সবারই কম-বেশি ইচ্ছা থাকে বিদেশে গিয়ে চাকরি করার। যে কারণে এখন লেখাপড়া করার আগে বিষয়টি নিয়ে শিক্ষার্থীরা একটু পর্যবেক্ষণ করে, বিষয়টির আন্তর্জাতিক চাহিদা কেমন। চাকরির সুযোগ কেমন, সব ধরনের বিষয়ে এ ধরনের সুযোগ থাকে না। তবে যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বিশ্বজুড়ে সমানভাবে চাহিদার কাতারে এসেছে ট্রাভেল ট্যুরিজম-সংক্রান্ত ব্যবস্থাপনা। এই খাতে বেতন কাঠামো ধরা হয় আন্তর্জাতিক কাঠামোর আদলে। অন্যদিকে ভ্রমণের আবেশ এবং গ্গ্নামার থাকায় আধুনিক স্মার্ট পেশা হিসেবে তরুণরা এই পেশা পছন্দ করছে দারুণভাবে। শুধু তাই নয়, সাধারণ চাকরির তুলনায় এর বেতন কয়েকগুণ বেশি। সঙ্গে থাকে অন্যান্য সুবিধা। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে শিক্ষার স্বাভাবিক ধারা লক্ষ্য করলে দেখা যায়, একজন শিক্ষার্থীকে এসএসসির পর গতানুগতিক ডিগ্রি পেতে ৭-৮ বছর সময় দিতে হচ্ছে। এরপরও চাকরি পাওয়া সহজ হয় না। কিন্তু আন্তর্জাতিক ধারায় এ ধরনের বিষয়ের শিক্ষার্থীদের পড়াশোনাকালীনই (ফাইনাল ইয়ার) চাকরির অফার আসতে শুরু করে। এসএসসি-এইচএসসি ‘এ’ লেভেল ‘ও’ লেভেল শেষ করে এ বিষয়ে পড়াশোনা করা যায়। তবে শিক্ষাগত যোগ্যতার সঙ্গে কিছু বাড়তি যোগ্যতাও শিক্ষার্থীকে দ্রুত চাকরি পেতে সহায়তা করে। এসব কোর্স আন্তর্জাতিক মান এবং পরিমণ্ডলের হওয়ার কারণে বিশ্বজুড়ে চাকরির বাজার থাকে অবারিত। এয়ারলাইন্সের ম্যানেজমেন্ট বা ব্যবস্থাপনা কোর্সটিতে এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনার বিভিন্ন দিক যেমন_ এয়ারলাইন্স কার্গো ম্যানেজমেন্ট, মার্কেটিং ও সেলস, এয়ারপোর্ট অপারেশন, বোর্ডিং কনট্রোল, ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা, কাস্টমার রিলেশন, এয়ারক্র্যাফট লিজিং, এয়ারলাইন্স ফিন্যান্স, এয়ারলাইন্স ইত্যাদি পড়ানো হয়। এর বাইরেও এখানে রয়েছে আরও কিছু শর্ট কোর্স। যেমন_ প্যাসেঞ্জার সার্ভিস, ফুড অ্যান্ড বেভারেজ, হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট, এয়ারক্রাফট সিক্যুরিটি অ্যান্ড সেফটি, কাস্টমার রিলেশন গ্রুমিং, টিকিট সেলস, কাস্টমার রিলেশন, ট্যুর অপারেশন, ট্যুর গাইড, ট্রাভেল এজেন্সি অপারেশন, রিজারভেশন সিস্টেম।এই প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা ক্রেডিট ট্রান্সফার করে বিশ্বের প্রায় সব দেশে লেখাপড়া বা জব নিয়ে চলে যেতে পারে। উন্নত শিক্ষার সঙ্গে পছন্দের পেশা গড়তে ভালো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুবই জরুরি। বাংলাদেশে ক্যাটেক এই খাতের শীর্ষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যাদের রয়েছে দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতা ও সাফল্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.