ব্রেকিং নিউজ :
Home » ব্রেকিং নিউজ লেখা » তেজগাঁওয়ে ২৪ নম্বর ওয়ার্ড আ.লীগের অবৈধ কার্যালয় উচ্ছেদ

তেজগাঁওয়ে ২৪ নম্বর ওয়ার্ড আ.লীগের অবৈধ কার্যালয় উচ্ছেদ

প্রাইম নিউজ ডেস্ক :  তেজগাঁওয়ে ২৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ১ নম্বর ইউনিটের একটি কার্যালয় উচ্ছেদ করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। আজ বৃহস্পতিবার শিল্পাঞ্চলের ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) সামনের ফুটপাতের এই স্থাপনা উচ্ছেদ করে ডিএনসিসি।

আজ অভিযান চলাকালে ২৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ১ নম্বর ইউনিটের একটি কার্যালয় বাদে বাকি সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। এ সময় জনতার দাবি ও উপস্থিত সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে দলীয় কার্যালয়টিও উচ্ছেদ করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
এর আগে আজ বেলা ১১টার দিকে উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। অভিযানের সময় সড়কের দুই পাশের ফুটপাতের ওপর থাকা প্রায় ২০০ অস্থায়ী স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়।
প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছেন, অভিযানের শুরুতে রাস্তার দুই পাশের ফুটপাত এবং পাশের বেশ কিছু কাঁচাপাকা স্থাপনা ভেঙে দেওয়া হয়। বেশ কিছু স্থাপনা ভাঙলেও ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের ১ নম্বর ইউনিট আওয়ামী লীগের অফিস না ভেঙে সামনের দিকে চলে যান সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তারা।
আরও কিছু স্থাপনা ভেঙে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে ফেরার পথে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সাজিদ আনোয়ার। তিনি জানান, তেজগাঁও এলাকা থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের অংশ হিসেবেই এ অভিযান। গত দুদিনে এ এলাকার প্রায় ৫০০ স্থায়ী-অস্থায়ী অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।
এ সময় আওয়ামী লীগ কার্যালয় না ভাঙার কারণ জানতে চান সাংবাদিকেরা। তখন ম্যাজিস্ট্রেট জানান, এটাও ভাঙা হবে। সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা শেষ করে মোবাইল ফোনে বেশ কিছুক্ষণ কথা বলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সাজিদ আনোয়ার। কথা বলা শেষে চলে যাওয়া পে-লোডার এবং বুলডোজার ডেকে পাঠান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। সেগুলো ফিরে আসার পর বেলা একটার দিকে দলীয় কার্যালয়টি বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়।
বনানী ও ফার্মগেটে জরিমানা: নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সাজিদ আনোয়ার আজ বনানী এলাকায় অভিযান চালিয়ে তিনটি রেস্তোরাঁ ও দুটি হার্ডওয়্যার দোকানকে ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। রেস্তোরাঁগুলোর বিরুদ্ধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯-এর অধীনে তিনটি মামলা করা হয়।
ডিএনসিসির আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম অজিয়র রহমানের নেতৃত্বে ফার্মগেট ও গ্রিনরোড এলাকার পাঁচটি রেস্তোরাঁর বিরুদ্ধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে পাঁচটি মামলা এবং ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

source: prothomalo

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.