ব্রেকিং নিউজ :
Home » নিউজ বক্স » নোয়াখালীর ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র রাকিবের চিকিৎসার জন্য সাহায্যের আবেদন

নোয়াখালীর ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র রাকিবের চিকিৎসার জন্য সাহায্যের আবেদন

প্রাইম নিউজ ডেস্ক : মুরাদপুর জুনিয়র স্কুল এর ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র রাকিব , পিতা- নুর নবী (নবী), গ্রাম- ১৫ নং শরীফপুর, উপজেলা- বেগমগজ্ঞ , জেলা – নোয়াখালী। বাবা পেরিওয়ালা ও মসজিদ এর খাদেম । নিজের পড়াশুনার পাশাপাশি উপার্জন ও করতে হয় তাকে , স্কুলে যাওয়ার আগে বা ছুটির দিনে পাড়ার গ্রামে গ্রামে গিয়ে নারিকেল সুপারী পাড়া কখনও মহল্লার দোকানের ক্রয় করা জিনিসপত্র বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছিয়ে দেয়া আবার কখনও বা কারো দোকানে দিনে ২/৩ ঘন্টা চাকুরী করে যে টাকা আয় করে চলে যায় রাকিবদের পরিবার ।
কিন্তু গত শুক্রবার ১৩ই অক্টোবর থেকে রাকিবের জীবনে নেমে আসে বিদ্যুৎ লাইন নামক অন্দকারের খরক। ছুটির দিনে উপার্জন করার আসায় নিজ গ্রামের পাশে আরেক গ্রামে সুপারী পাড়তে যায় , কিন্তু না অন্য দিনের মত রাকিব টাকা উপার্জন করে ফিরতে পারেনি সুস্থ শরীরে , সুপারী গাছ থেকে ছিটকে পড়ে যায় পাশে থাকা ৪৪০ ভোল্ট এর বিদ্যুৎ লাইনের উপর , আর ইতি মধ্যে বিদ্যুৎ এ জ্বলসে যায় রাকিবের নিথর দেহের আনেক অংশ ।
নোয়াখালী জেলা সদর হাসপাতলে ৪/৫ দিন চিকিৎসা নেয়ার পর গত কাল রাকিবকে স্থানীয় চিকিৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ এর বার্ন ইউনিট এ স্থানান্তর করেন । বর্তমানে বার্ন ইউনিট এর ২য় তলার ৪ নং বেডে আছে মুরাদপুর জুনিয়র স্কুল এর ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র রাকিব।
দিন দিন তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটছে।ধীরে ধীরে নিশ্চিত মৃত্যুকে আলিঙ্গন করতে যাচ্ছে রাকিব , অর্থের অভাবে অনেকটা মৃত্যু পথযাত্রী এখন রাকিব । জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে থেকে ও রাকিবের বেঁচে থাকার আকুতি, যে সে সুস্থ হয়ে ফিরে পাবে তার প্রিয় গ্রাম ও গ্রামের প্রিয় মানুষ গুলোকে। অবলীলায় বলে উঠে আমি বাঁচতে চাই, সকলের কাছে দোয়া ও সাহায্য চাই।
বাবা পেরিওয়ালা, পরিবারের পক্ষে এত টাকা সংগ্রহ করা কোনো ভাবেই সম্ভব নয়, তাই সমাজের বা দেশের বিত্তবান , দানশীল ব্যক্তিরা এগিয়ে আসলেই বাঁচতে পারে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র রাকিবের জীবন।

রাকিবের জন্য সাহায্য করতে এ নাম্বার গুলোতে  যোগাযোগ  করতে পারেন – ০১৮৭৬-৯৩১৩৪৬ ,০১৭১১-১৮৬২৯২,০১৮২৮-৫৮৬০৬০ ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.